1. admin@prothomaloonlinenews.com : admin :
জিয়া শহীদ আর বঙ্গবন্ধু নিহত! - জয় বাংলার জয়
মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১০:১৩ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তিঃ

শিঘ্রই ম্প্রচারে আসছে রিয়ান টেলিভিশন। ২৪ ঘণ্টার পূর্ণাঙ্গ বাংলা টেলিভিশন "রিয়ান" টেলিভিশন। ‌'দেখিয়ে দাও বাংলাদেশ' স্লোগানকে সামনে রেখে সিঙ্গাপুর, লন্ডন, নিউইয়র্ক ও ঢাকা থেকে চারটি আলাদা বেজ-স্টেশনের মাধ্যমে পরিচালিত হবে চ্যানেলটি ♦ ঈদ মানে আনন্দ, তবে আমার জন্য না! যেমন আমার ঈদের আনন্দ কেড়ে নিয়েছে সে.....

ব্রেকিং নিউজ :
অভিনেতা মাহমুদ সাজ্জাদের মৃত্যুতে ভোরের পাতা সম্পাদক কাজী এরতেজা হাসানের শোক ‘অর্থের বিনিময়ে কোথাও যুবলীগের কমিটি দেওয়া হবে না’ : শেখ ফজলে নাইম যুবলীগে কোনো সন্ত্রাস-মাস্তানের ঠাঁই হবে না: ব্যারিস্টার নাঈম শেখ ফজলে নাঈমের আগমনকে কেন্দ্র করে করে বর্ণিল আয়োজনে ব্রাহ্মণবাড়িয়া তোমরা সু শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে দেশের উন্নয়নে অংশগ্রহণ করবে : নিখিল তিন ছাত্রলীগ নেতার সহযোগীতায় আটক হন অভিযুক্ত ইকবাল কু’ নাম দিয়ে আমি কোনো বিভাগ দেবো না, মেঘনা নামে বিভাগ হবে: প্রধানমন্ত্রী মানবিক যুবনেতা বঙ্গবন্ধুর দৌহিত্র শেখ নাঈম যুবলীগ চেয়ারম্যানের নম্বর ক্লোন করে প্রতারণা, গ্রেপ্তার ২ তারুন্যের অহংকার যুবলীগ নেতা ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নাঈম

জিয়া শহীদ আর বঙ্গবন্ধু নিহত!

  • প্রকাশকাল: বুধবার, ১৮ আগস্ট, ২০২১

সম্পাদক: আমি শেখ মুজিব এবং জিয়া দুজনকেই শ্রদ্ধা করি, আমি নিরপেক্ষ

গুড ফর ইউ, তবে নিরপেক্ষ কথাটা বরাবরই সন্দেহজনক। কারণ এদের পক্ষপাত মূলত স্বার্থভিত্তিক এবং ধান্দাবাজ লোকজন যারা ধর্মেও আছে জিরাফেও, তারা এই টাইপের কথা বইলা বঙ্গবন্ধু আর জিয়ারে এক কাতারে আনার চেষ্টা করে।

কিন্তু এটা তো স্বীকার করবেন জিয়া রাষ্ট্রচালনায় বঙ্গবন্ধুর চেয়ে সফল ছিলেন
কিসের ভিত্তিতে দিবো এই স্বীকৃতি। লিজেন্ড, মিথ আর মিথ্যাচাররে আমি তো এক পাল্লাতেই তুলি না, বরং এইটা বলবো যে বঙ্গবন্ধুর ঘাড়ে বন্দুক রাইখা জিয়া দেশ চালাইছেন, নিজের অপকীর্তিগুলা ওনার নামে জায়েজ করার চেষ্টা করছেন, এবং তার মূর্খ কিন্তু ধূর্ত সমর্থকরা যুক্তির বদলে গায়ের জোরেই সেইগুলারে প্রতিষ্ঠার প্রয়াস পায়।
মানে?
মানে তো সিম্পল, কয়টা উদাহরণ দিমু জাআআতীয়তাবাদী চাপাবাজির? ধরো কিছু হইলেই কয় বঙ্গবন্ধুর বাকশালের কথা, যেন ভয়ঙ্কর এক ব্যাপার। বঙ্গবন্ধু এই দ্বিতীয় বিপ্লবের ঘোষণা দিছেন ১৯৭৫ সালের ২৫ জানুয়ারি। কিন্তু আনুষ্ঠানিকভাবে কার্যকর করতে পারেন নাই, গভর্নরদের ট্রেনিং শেষ হবে তারপরই না কার্যকর, তার আগেই তো তারে হত্যা করা হইলো। কিন্তু সেই বাস্তবায়িত না হওয়া কর্মসূর্চী দিয়া বলা হয় মুজিবের শাসন বাকশালী শাসন। অথচ জিয়া নিজে এর অন্তর্ভুক্ত ছিলেন, চিঠি দিয়া অভিনন্দন জানাইছেন পর্যন্ত জেলাশাসক হিসেবে নির্বাচিত গভর্নরদের।

যাহোক ৭৬ থেকে ৮১ পর্যন্ত জিয়া যেভাবে দেশ চালাইছেন রাষ্ট্রবিজ্ঞানের ভাষায় ওইটা কোন শাসনের পর্যায়ে পড়ে? ওইখানে গণতন্ত্র ছিলো? সংবাদপত্রের স্বাধীনতা ছিলো, বাকস্বাধীনতা ছিলো? চারটা পত্রিকার বদলে বাংলাদেশে পাচটা পত্রিকা চালু করছিলেন জিয়া?
বলেন জাসদের কথা। জাসদ ধইরা ঘোষণা দিয়া দিয়া মারছেন, তাদের রেডিওতে দেশ ও স্বাধীনতার শত্রু ঘোষণা দিয়া মারছেন জিয়া। আর বঙ্গবন্ধু তাগো গণতান্ত্রিক রাজনীতির সুযোগ দিছিলেন নিজেরে এবং দলরে ঝুকিতে রাইখা, গ্রেফতার করছেন কিন্তু কুত্তার মতো গুলি কইরা মারান নাই।

আরও পড়ুন :  মার্কিন অ্যাটর্নি হলেন নিউইয়র্ক আওয়ামীলীগ নেতার স্ত্রী বাংলাদেশী রুমা

In early January the first public announcement was made regarding the founding of a police “Combat Battalion” under the direction of the new Home Secretary, Salauddin Ahmed, a rehabilitated official who had directed internal security functions in East Pakistan under Ayub Khan. According to one western news report, filed by CBS News’ Far East Correspondent, then visiting Dacca:

জিয়া শহীদ আর বঙ্গবন্ধু নিহত!

“In view of the question marks hanging over the loyalties of many personalities in the armed forces through their activities during November’s mutiny, Zia is now engaged in a full-scale overhaul of Bangladesh’s police and the formation of an elite 12,500-man ‘special police force’. The concept of the force was made public shortly after senior police officials from throughout the country met in Dacca with Zia and other Government leaders to discuss how Bangladesh’s police could be ‘reorganized into an effective force to face the challenge of the time’. Although most details of the overhaul have remained secret, sources in Dacca believe Zia ‘reorganized’ the police in order to secure its full loyalty since the armed forces were considered unreliable. It is believed that this factor caused Zia to place the new special operations units, which would normally be part of the military, under police control.

The new 12,500-man force, which is divided into five 2,500-man ‘armed battalions’, is about the same size as the ill-fated Rakkhi Bahini. Many observers here suspect that the new formation may have the same function as the Rakkhi Bahini, although the Government says the force is designed ‘to combat crimes of a special nature’, particularly where ‘sophisticated weapons’ are involved. It will also carry out ‘special drives, mopping-up operations and other activities requiring special training and techniques.’ The battalions will have no permanent base, but will ‘always be in combat readiness’ and available for duty anywhere in Bangladesh.

আরও পড়ুন :  দিল্লিতে আমাদের নামও পরিবর্তন করতে হয়েছিল'- শেখ রেহানা

The force appears to be just what the Government needs to carry through its rapidly accelerating campaign against the left-wing Jatyo Samajtantrik Dal (Socialist Nationalist Party). The crackdown, which assumed large-scale proportions in Dacca after the abortive attempt to kidnap the Indian High Commissioner, has now spread throughout Bangladesh. Reports reaching the capital indicate that gunfights, chases, and mass arrests are taking place regularly.

In December, the Dacca press reported the seizure of ‘a huge number of unauthorized weapons’ and the apprehension of over 1,000 ‘miscreants’ (the Government’s term for JSD members). Westerners engaged in relief work in eastern and northern Bangladesh claim police have threatened village headmen with arrest if they did not identify JSD cadres. These Westerners also say that detention and harassment of family and friends of suspected JSD members have been occurring with increasing frequency.” (January 16, 1976)

বলেন রক্ষী বাহিনীর কথা। নভেম্বরে এরাই তো সেনাবাহিনীতে একাত্ম হয় জিয়ার নির্দেশে। তাদের তো তাৎক্ষনিক বিলুপ্ত করা হয় নাই। কিন্তু জিয়া নিজেও তো একই কাঠামোয় একটা প্যারামিলিটারি বাহিনী তৈরি করছেন, একই লোকবল একই বেতনকাঠামোয়। অস্ত্র উদ্ধার, চোরাচালানরোধ, আভ্যন্তরীন শৃংখলার নামে। রক্ষী বাহিনীতো বঙ্গবন্ধু মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়া তৈরি করছিলেন, যাতে তারা তাদের ট্রেনিং দেশের কাজে লাগায়। জিয়ার দেশরক্ষা বাহিনী কাদের নিয়া গঠিত ছিলো? কেনো এদের কথা বলেন না? এই জন্যই বলেন না বা বলতে পারেন না যে জিয়ার আমলে তার সরকারের সমালোচনার কোনো সুযোগ রাখা হয় নাই, গণমাধ্যমে এ ব্যাপারে স্ট্রিকট নির্দেশনা ছিলো (উপরের কোনো তথ্য চাপা মনে হইলে চ্যালেঞ্জ কইরেন খোলা ময়দানে, প্রমাণ সহকারে নাঙ্গা করে দিবো)। তার রাজাকারবান্ধব সরকার যা প্রচার করছে তাই তো তোতাপাখীর মতো আওরাইতেছেন। কোন যুক্তিতে মিয়া বরাবরিতে আনেন তাগোরে?

আরও পড়ুন :  প্যারিসে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীতে স্মারক ডাক টিকেট অবমুক্ত

-আচ্ছা বাদ দেন ভাই। লিগেসি অব ব্লাড পড়ছেন? অ্যান্থনী মাসকারেনহাসের, আমি ওইটা পড়ছিলাম তো, তাই আমার দুইজনরেই মনে হইছে ব্যাপক নির্মমতার শিকার। দুইজনই ঘাতকের গুলিতে প্রাণ হারাইছেন।

-হাহাহা, অ্যান্থনী মাসকারেনহাস। হাহাহা, ভালো সুপারিশে লেখা ঐতিহাসিক ফিকশন নিয়া আসছেন বঙ্গবন্ধুরে বিচার করতে, হাহাহা।
নো ম্যান, এমনকি মৃত্যুতেও জিয়া বঙ্গবন্ধুর সমকক্ষ নন।
নিজের সন্তানদের পরিবারের সদস্যদের মৃত্যুর কোলে ঢইলা পড়তে দেখছেন বঙ্গবন্ধু। তারপরও বুক চিতায়া মুখোমুখি হইছেন ঘাতকদের। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পারলে জোগাড় কইরেন। শেখ মুজিবের বুক বিদীর্ণ করছে খুনীদের ব্রাশফায়ার। বাংলার শতবছরের কিংবদন্তী নেতা বুকে ধারণ করছেন, বুকে ম্যান, পিঠে না, জিয়ার মতো পিঠে না। বুকে। বীর কখনও পিঠে গুলি খায় না। আর তারপরও জিয়া শহীদ আর বঙ্গবন্ধু নিহত!

পিটি অন ইউর সৌলস মাই ডিয়ার পিপল অব বেঙ্গল, আল্লাহ তোমাদের কলবের উপরে জমাট শেওলা পরিষ্কার করার তৌফিক দিন।…

শরিফুল আলম চৌধুরী
সিনিয়র সাংবাদিক ও কলামিস্ট

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ক্যাটাগরীর আরও খবর




twitt feed

Linkedin profile



Copyright ©2021,joybanglarjoy.com, All Rights Reserved.

ডিজাইনঃ নাগরিক আইটি