1. admin@prothomaloonlinenews.com : admin :
সোমবার, ১০ মে ২০২১, ০২:০৪ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তিঃ
Welcome To Our Website...

না ফেরার দেশে রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী মিতা হক

  • প্রকাশকাল: রবিবার, ১১ এপ্রিল, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক: বরেণ্য রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী মিতা হক মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন)। আজ রবিবার (১১ এপ্রিল) সকাল ৬টা ২০ মিনিটে রাজধানীর বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন।

শিল্পী সোহরাব উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। সম্পর্কে মিতা হকের ননদাই।

সোহরাব উদ্দিন জানান, গত ৩১ মার্চ করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হন তিনি। একপর্যায়ে করোনা থেকে সেরে উঠে হাসপাতাল থেকে বাসায় চলে আসেন। তিনি কিডনি রোগে ভুগছিলেন তাই তাঁর নিয়মিত ডায়লাইসিস করতে হতো। গতকাল শনিবার (১০ এপ্রিল) ডায়লাইসিস করার সময় তার প্রেসার ফেল করে। এর পর বাসায় নেওয়ার পরও আবার তার প্রেসার ফেল করলে পূনরায় হাসপাতালে ভর্তি করানো হয় তাঁকে। এসময় চিকিৎসকরা জানান, তিনি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছেন। এরপর ভেন্টিলেশনে রাখা হয় তাঁকে। একপর্যায়ে আজ রবিবার সকালে চিরদিনের জন্য না ফেরার দেশে চলে গেলেন তিনি।

পারিবারিক সূত্র জানায়, কেরানীগঞ্জে মিতা হকদের আদি বাড়িতে তাঁকে সমাদিস্থ করা হবে।

বরেণ্য এ রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী মিতা হক ১৯৬৩ সালে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি প্রথমে তাঁর চাচা ওয়াহিদুল হক এবং পরে ওস্তাদ মোহাম্মদ হোসেন খান ও সনজীদা খাতুনের কাছে গান শেখেন। ১৯৭৪ সালে তিনি বার্লিন আন্তর্জাতিক যুব ফেস্টিভালে অংশ নেন। ১৯৭৬ সাল থেকে তিনি তবলা বাদক মোহাম্মদ হোসেন খানের কাছে সংগীত শেখা শুরু করেন। ১৯৭৭ সাল থেকে নিয়মিত তিনি বাংলাদেশ টেলিভিশন ও বেতারে সংগীত পরিবেশনা করেছেন।

২০১৬ সালে শিল্পকলা পদক লাভ করেন মিতা হক। এরপর কবি রবীন্দ্রনাথের ১৫৬ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে তাঁকে বাংলা একাডেমির রবীন্দ্র পুরস্কার দেওয়া হয়। একই বছর চ্যানেল আই আয়োজিত রবি-চ্যানেল আই রবীন্দ্রমেলায় রবীন্দ্র সঙ্গীতে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে মিতা হককে সম্মাননা দেওয়া হয়। ২০২০ সালে বাংলাদেশ সরকার তাকে একুশে পদকে ভূষিত করে।

মিতা হক অভিনেতা-পরিচালক খালেদ খানের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। খালেদ খান ২০১৩ সালের ২০ ডিসেম্বর মৃত্যুবরণ করেন। এই দম্পতির ফারহিন খান জয়িতা নামে এক কন্যা সন্তান রয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

© All rights reserved
ডিজাইনঃ নাগরিক আইটি