মৃত্যুর খবর ভূয়া, বেঁচে আছেন ছোটা রাজন : দিল্লি পুলিশ – জয় বাংলার জয়
  1. admin@prothomaloonlinenews.com : admin :
শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ০২:৩১ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তিঃ

শিঘ্রই ম্প্রচারে আসছে রিয়ান টেলিভিশন। ২৪ ঘণ্টার পূর্ণাঙ্গ বাংলা টেলিভিশন "রিয়ান" টেলিভিশন। ‌'দেখিয়ে দাও বাংলাদেশ' স্লোগানকে সামনে রেখে সিঙ্গাপুর, লন্ডন, নিউইয়র্ক ও ঢাকা থেকে চারটি আলাদা বেজ-স্টেশনের মাধ্যমে পরিচালিত হবে চ্যানেলটি ♦ ঈদ মানে আনন্দ, তবে আমার জন্য না! যেমন আমার ঈদের আনন্দ কেড়ে নিয়েছে সে.....

ব্রেকিং নিউজ :
সম্পাদক পদে মনোনয়ন জমা দিলেন যুবলীগ চেয়ারম্যানের স্ত্রী এড.যূথী মনোনয়নপত্র বোর্ডেই জমা হয়নি, অভিযোগ অ্যাডভোকেট যুথির ঢাকা বারের নবনির্বাচিত কমিটিকে এড. নাহিদ সুলতানা যূথীর অভিনন্দন দেবীদ্বারে তানিশা ট্রাভেল এজেন্সি উদ্বোধন দেবীদ্বারে ভোটের আগের রাতেই নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থীর মৃত্যু সাংবাদিকদের ডাটাবেজ সরকারের একটি প্রশংসনীয় উদ্যোগ প্রকৃত কারণ বের করা জরুরি, সাংবাদিক হাবীবের মৃত্যু দুর্ঘটনা নাকি হত্যা? : সাংবাদিক রায়হান উল্লাহ সড়ক দুর্ঘটনায় সাংবাদিকের মৃত্যু, কুমিল্লায় শোকের মাতম কর্নেল ফারুক খান এমপিকে জসীম উদ্দিন চৌধুরীর শুভেচ্ছা হুইপ স্বপনের পিতার মৃত্যুতে ফারুক খান এমপির শোক

মৃত্যুর খবর ভূয়া, বেঁচে আছেন ছোটা রাজন : দিল্লি পুলিশ

  • প্রকাশকাল: শুক্রবার, ৭ মে, ২০২১

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: বেঁচে আছেন ছোটা রাজন তাঁর মারা যাওয়ার খবর ভুয়ো৷
শুক্রবার দুপুরে আচমকা খবর ছড়ায় কোভিডে মারা গিয়েছেন অপরাধ জগতের কুখ্যাত মাফিয়া ছোটা রাজন৷ করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর থেকেই তাঁর চিকিৎসা চলছিল দিল্লি এইমসে৷ সেখানেই নাকি মৃত্যু হয় কুখ্যাত ডনের৷ খবরটি দাবালনের মতো ছড়িয়ে পড়ে সোশ্যাল মিডিয়ায়সহ কয়েকটি অখ্যাত কথিত টিভি অনলাইন পোর্টালে এইমসের তরফে খবরটি ভুয়ো বলে জানিয়ে দেওয়া হয়৷ বলা হয়েছে, ছোটা রাজন এখনও বেঁচে আছেন৷ এইমসে তাঁর চিকিৎসা চলছে৷

২০১১ সালে সাংবাদিক জ্যোতির্ময় দে হত্যা মামলায় নাম জড়ায় ছোটা রাজনের৷ ভারত থেকে পালিয়ে তিনি থাকছিলেন ইন্দোনেশিয়ার বালিতে৷ কিন্তু ২০১৫ সালে কড়া নিরাপত্তায় তাঁকে দেশে ফিরিয়ে আনে ভারত সরকার৷ ২০১৮ সালে সাংবাদিক হত্যা মামলায় ছোটা রাজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের সাজা ঘোষণা করে আদালত৷




ছোটা রাজনের পুরো নাম রাজেন্দ্র নিরালজে৷ অপরাধ জগতে নামার পরই ছোটা রাজন নামে তাকে চিনতে শুরু করে মাফিয়ারা৷ তাঁর মাথায় ৭০টির বেশি ক্রিমিন্যাল কেস ঝুলছিল৷ ২০১৫ সালে ভারতে ফিরিয়ে আনার পরই ৬১ বছর বয়সী কুখ্যাত ডনের ঠাঁই হয় তিহার জেলে৷ জানা গিয়েছে, গত ২৬ এপ্রিল করোনায় আক্রান্ত হন ছোটা রাজন৷ অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় দিল্লি এইমসে৷ সেখানেই চিকিৎসা চলছে তাঁর৷ কোভিডের কারণেই গত মাসে একটি মামলার শুনানিতে তাঁকে ভিডিও কনফারেন্সে আদালতে হাজির করা যায়নি৷

আরও পড়ুন :  দিল্লির লকডাউন আরো এক সপ্তাহ বাড়লো

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ ক্যাটাগরীর আরও খবর




twitt feed

Linkedin profile



Copyright ©2021,joybanglarjoy.com, All Rights Reserved.

ডিজাইনঃ নাগরিক আইটি