নির্যাতিত রোজিনা ও ডেইলি স্টারের বিজ্ঞাপন লালসা – জয় বাংলার জয়
  1. admin@prothomaloonlinenews.com : admin :
বুধবার, ১৮ মে ২০২২, ০৬:১৩ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তিঃ

শিঘ্রই ম্প্রচারে আসছে রিয়ান টেলিভিশন। ২৪ ঘণ্টার পূর্ণাঙ্গ বাংলা টেলিভিশন "রিয়ান" টেলিভিশন। ‌'দেখিয়ে দাও বাংলাদেশ' স্লোগানকে সামনে রেখে সিঙ্গাপুর, লন্ডন, নিউইয়র্ক ও ঢাকা থেকে চারটি আলাদা বেজ-স্টেশনের মাধ্যমে পরিচালিত হবে চ্যানেলটি ♦ ঈদ মানে আনন্দ, তবে আমার জন্য না! যেমন আমার ঈদের আনন্দ কেড়ে নিয়েছে সে.....

ব্রেকিং নিউজ :
সম্পাদক পদে মনোনয়ন জমা দিলেন যুবলীগ চেয়ারম্যানের স্ত্রী এড.যূথী মনোনয়নপত্র বোর্ডেই জমা হয়নি, অভিযোগ অ্যাডভোকেট যুথির ঢাকা বারের নবনির্বাচিত কমিটিকে এড. নাহিদ সুলতানা যূথীর অভিনন্দন দেবীদ্বারে তানিশা ট্রাভেল এজেন্সি উদ্বোধন দেবীদ্বারে ভোটের আগের রাতেই নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থীর মৃত্যু সাংবাদিকদের ডাটাবেজ সরকারের একটি প্রশংসনীয় উদ্যোগ প্রকৃত কারণ বের করা জরুরি, সাংবাদিক হাবীবের মৃত্যু দুর্ঘটনা নাকি হত্যা? : সাংবাদিক রায়হান উল্লাহ সড়ক দুর্ঘটনায় সাংবাদিকের মৃত্যু, কুমিল্লায় শোকের মাতম কর্নেল ফারুক খান এমপিকে জসীম উদ্দিন চৌধুরীর শুভেচ্ছা হুইপ স্বপনের পিতার মৃত্যুতে ফারুক খান এমপির শোক

নির্যাতিত রোজিনা ও ডেইলি স্টারের বিজ্ঞাপন লালসা

  • প্রকাশকাল: বুধবার, ১৯ মে, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রথম আলোর সিনিয়র সাংবাদিক রোজিনা ইসলাম এখন কারাগারে। ১৭ মে স্বাস্থ্য সেবা সচিবের অফিস কক্ষে তাকে লাঞ্চিত করা হয়। এই ঘটনা ন্যাক্কারজনক নজীরবিহীন। সারাদেশ এবং গণমাধ্যম এই জঘন্য ঘটনার প্রতিবাদে সোচ্চার। অথচ স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এখনও এই ঘটনার পক্ষে সাফাই দিয়ে যাচ্ছে। গতকাল স্বাস্থ্যমন্ত্রী নির্যাতনকারীদের পক্ষে অবস্থান নিয়ে সমালোচিত হয়েছেন। কিন্তু তারপরও আজ এই ঘটনার পক্ষে সাফাই গেয়ে বিভিন্ন জাতীয় দৈনিকে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় এক বিজ্ঞাপন দিয়েছে।

‘সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের অনভিপ্রেত আচরণ ও তৎপরবর্ত্তী ঘটনা সম্পর্কে বিভ্রান্তিকর প্রচারণা বিষয়ে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের ব্যাখা’ শিরোনামে ঐ বিজ্ঞাপনটি আপত্তিকর।

এই বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় রোজিনাকে আরেক দফা নির্যাতন করলো। মিথ্যাচারে পরিপূর্ণ ঐ বিজ্ঞাপনে দুর্বৃত্ত নির্যাতনকারীদের বাঁচানোর চেষ্টা করা হয়েছে। আর এই নোংরা, কুৎসিত এবং আপত্তিকর বিজ্ঞাপনটি প্রকাশ করে ডেইলী স্টার প্রকারান্তে রোজিনার নিপীড়নকারীতে পরিণত হয়েছে।

উল্লেখ্য, প্রথম আলো এবং ডেইলি স্টার একই প্রকাশনা প্রতিষ্ঠানের মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান। মাহফুজ আনাম কিছুদিন আগেও প্রথম আলোর প্রকাশক ছিলেন। ডেইলি স্টারের সম্পাদক মাহফুজ আনাম আজ এই ঘটনার নিন্দা জানিয়ে কমেন্টি লিখেছেন। অথচ তার পত্রিকায় এই অসত্য বিজ্ঞাপনটি প্রকাশিত হয়েছে। এটি অর্থ লোভ এবং নীতি ভ্রষ্ট সাংবাদিকতার এক প্রকৃষ্ট উদাহরণ। সাংবাদিকতার স্বাভাবিক নীতি হলো সম্পাদকীয় নীতির পরিপন্থী কোন বিজ্ঞাপন প্রকাশ না করা। বিজ্ঞাপন যদি পত্রিকার নীতির সঙ্গে সাংঘর্ষিক হয় তাহলে তা প্রচার না করাই হলো সৎ সাংবাদিকতার বৈশিষ্ট্য। কিন্তু ডেইলি স্টার মাত্র কিছু টাকার লোভে এই বিজ্ঞাপনের লালসা থেকে নিজেকে মুক্ত করতে পারেনি।

রোজিনা যখন জেলে তখন ডেইলি স্টারের এই বিজ্ঞাপন লালসা, প্রমাণ করলো, বাংলাদেশে বুদ্ধিবৃত্তিক চর্চার করুন হাল। এই মাহফুজ আনামই গতকাল সংবাদপত্র পরিষদের সভাপতি হিসেবে রোজিনার ঘটনার উপর এক বিবৃতি দিয়েছেন। কি অদ্ভুত না। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে বিজ্ঞাপনের নামে ঘুষও নেবেন আবার সাংবাদিকতার আদর্শও কপচাবেন।

আরও পড়ুন :  যুগল পথে দুই যুগে মাহমুদ স্বপন- মেহবুবা আলম

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ ক্যাটাগরীর আরও খবর




twitt feed

Linkedin profile



Copyright ©2021,joybanglarjoy.com, All Rights Reserved.

ডিজাইনঃ নাগরিক আইটি