সাংবাদিক রোজিনার মামলাটি প্রত্যাহার চায় আইএফজে – জয় বাংলার জয়
  1. admin@prothomaloonlinenews.com : admin :
বুধবার, ২৫ মে ২০২২, ০৯:০৪ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তিঃ

শিঘ্রই ম্প্রচারে আসছে রিয়ান টেলিভিশন। ২৪ ঘণ্টার পূর্ণাঙ্গ বাংলা টেলিভিশন "রিয়ান" টেলিভিশন। ‌'দেখিয়ে দাও বাংলাদেশ' স্লোগানকে সামনে রেখে সিঙ্গাপুর, লন্ডন, নিউইয়র্ক ও ঢাকা থেকে চারটি আলাদা বেজ-স্টেশনের মাধ্যমে পরিচালিত হবে চ্যানেলটি ♦ ঈদ মানে আনন্দ, তবে আমার জন্য না! যেমন আমার ঈদের আনন্দ কেড়ে নিয়েছে সে.....

ব্রেকিং নিউজ :
সম্পাদক পদে মনোনয়ন জমা দিলেন যুবলীগ চেয়ারম্যানের স্ত্রী এড.যূথী মনোনয়নপত্র বোর্ডেই জমা হয়নি, অভিযোগ অ্যাডভোকেট যুথির ঢাকা বারের নবনির্বাচিত কমিটিকে এড. নাহিদ সুলতানা যূথীর অভিনন্দন দেবীদ্বারে তানিশা ট্রাভেল এজেন্সি উদ্বোধন দেবীদ্বারে ভোটের আগের রাতেই নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থীর মৃত্যু সাংবাদিকদের ডাটাবেজ সরকারের একটি প্রশংসনীয় উদ্যোগ প্রকৃত কারণ বের করা জরুরি, সাংবাদিক হাবীবের মৃত্যু দুর্ঘটনা নাকি হত্যা? : সাংবাদিক রায়হান উল্লাহ সড়ক দুর্ঘটনায় সাংবাদিকের মৃত্যু, কুমিল্লায় শোকের মাতম কর্নেল ফারুক খান এমপিকে জসীম উদ্দিন চৌধুরীর শুভেচ্ছা হুইপ স্বপনের পিতার মৃত্যুতে ফারুক খান এমপির শোক

সাংবাদিক রোজিনার মামলাটি প্রত্যাহার চায় আইএফজে

  • প্রকাশকাল: শুক্রবার, ২১ মে, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক: আজ শুক্রবার দ্য ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অব জার্নালিস্টস (আইএফজে) তাদের নিজস্ব ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের মামলাটি নিয়ে উদ্বেগ জানায়। এতে বলা হয়, সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের বিরুদ্ধে হয়রানিমূলক এ মামলার ঘটনায় বাংলাদেশ মানবাধিকার সাংবাদিক ফোরামের (বিএমএসএফ) উদ্বেগ প্রকাশের পাশাপাশি আইএফজেও উদ্বিগ্ন।
আইএফজে বলেছে, রোজিনা ইসলামের বিরুদ্ধে সমন্বিত আইনি প্রক্রিয়া গ্রহণের এ চেষ্টা স্পষ্টতই বাংলাদেশে গণমাধ্যমকে ভয়ভীতি দেখানো এবং তাদের স্বাধীনতায় বাধা দেওয়ার চেষ্টা।

চুরির অপবাদ, ৬ ঘণ্টা আটকে রাখা, অশালীন আচরণ এবং মামলা দায়ের। সবশেষ নজিরবিহীন পুলিশ প্রহরায় আদালতে হাজির করা হয় নারী সাংবাদিককে। ৬ ঘণ্টা ধরে আটকে রাখা হলেও সেখানে হাজির হননি মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী জাহিদ মালেক বা সচিব লোকমান হোসেন মিয়া।
সেদিনের ঘটনার পর থেকে একদিকে যেমন ক্ষুব্ধ সংবাদমাধ্যমকর্মীরা অন্যদিকে বিব্রত সরকারও।

সচেতনমহলরা মনে করেন, সেদিন উপস্থিত কর্মকর্তারা অদক্ষতার পরিচয় দিয়েছেন। যে অদক্ষতার কারণে গণমাধ্যম ও সরকার মুখোমুখি দাঁড়িয়েছে এবং বিষয়টি ঘোলাটে হয়েছে।

এ মামলার বিষয় উল্লেখ করে আইএফজের বিবৃতিতে বলা হয়, সরকারের একটি বিভাগের অনিয়ম ও দূর্নীতি নিয়ে জনস্বার্থ-সংশ্লিষ্ট প্রতিবেদন ছাপানোর ফলাফল হিসেবে রোজিনা ইসলামকে যেভাবে আইনি হয়রানিতে ফেলা হয়েছে, তাতে আইএফজে গভীরভাবে উদ্বিগ্ন।

আইএফজে রোজিনাকে অবৈধভাবে একটি কক্ষে আটক রেখে ও তার উপর নির্যাতন করার ঘটনা তদন্ত করে সাংবাদিকদের হয়রানী বন্ধ করার দাবি জানিয়েছে।

আইএফজের বিবৃতি

এটি এমন একটি আইনের মামলা যেখানে বাংলাদেশের সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে ইচ্ছাকৃতভাবে নির্যাতন ও হয়রানী করাসহ মিথ্যা অভিযোগে শাস্তি পর্যন্ত দেওয়া যায়। ডিজিটাল সুরক্ষা আইন, যার অধীনে ইসলামের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে সেগুলি সহ আইনগুলি সাধারণত অপব্যবহার করা হয়। এই মাসের শুরুতে, নয়টি বেসরকারী সংস্থা মানবাধিকার বিষয়ক জাতিসংঘের হাই কমিশনার মিশেল ব্যাচলেটকে চিঠি দিয়ে বাংলাদেশের মত প্রকাশের স্বাধীনতা এবং গণমাধ্যমের স্বাধীনতা সম্পর্কে সরকারের উদ্বেগ প্রকাশ করার বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে।

আরও পড়ুন :  রোজিনাকে ফাঁসাতে গিয়ে বহি:বিশ্বে বাংলাদেশের ভাবমুর্তি ক্ষুন্ন করলো স্বাস্থ্য বিভাগ

আইএফজে বলেছেন: “দূর্নীতি ও অনিয়ম নিয়ে কোন প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ করা হলে সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের হয়রানি ও গ্রেপ্তারকে উদাহরণ দেখিয়ে ওই প্রতিষ্ঠানের সমালোচনা করা সাংবাদিকরা কীভাবে নির্যাতন ও শাস্তি পান তা বুঝানোর জন্যই এ ব্যবস্থা। যা বলপ্রয়োগ ও রাষ্ট্রীয় ক্ষমতার বৈধ অনুশীলন বাংলাদেশে বিপন্ন করা হচ্ছে। আমরা আপত্তিজনকভাবে এর তীব্র নিন্দা জানাই এবং অনুরোধ করছি যে রোজিনা ইসলামের মামলাটি অবিলম্বে প্রত্যাহার করা হোক। ”

আরও পড়ুন :  মন্ত্রণালয়ের গুটি কয়েক লোকের কারণে প্রশ্নের মুখে পড়ছি: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ ক্যাটাগরীর আরও খবর




twitt feed

Linkedin profile



Copyright ©2021,joybanglarjoy.com, All Rights Reserved.

ডিজাইনঃ নাগরিক আইটি