ডিবির তদন্ত শুরু, ফরেনসিক ল্যাবে পাঠানো হচ্ছে রোজিনার মোবাইল – জয় বাংলার জয়
  1. admin@prothomaloonlinenews.com : admin :
রবিবার, ২৯ মে ২০২২, ০১:৪৮ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তিঃ

শিঘ্রই ম্প্রচারে আসছে রিয়ান টেলিভিশন। ২৪ ঘণ্টার পূর্ণাঙ্গ বাংলা টেলিভিশন "রিয়ান" টেলিভিশন। ‌'দেখিয়ে দাও বাংলাদেশ' স্লোগানকে সামনে রেখে সিঙ্গাপুর, লন্ডন, নিউইয়র্ক ও ঢাকা থেকে চারটি আলাদা বেজ-স্টেশনের মাধ্যমে পরিচালিত হবে চ্যানেলটি ♦ ঈদ মানে আনন্দ, তবে আমার জন্য না! যেমন আমার ঈদের আনন্দ কেড়ে নিয়েছে সে.....

ব্রেকিং নিউজ :
সম্পাদক পদে মনোনয়ন জমা দিলেন যুবলীগ চেয়ারম্যানের স্ত্রী এড.যূথী মনোনয়নপত্র বোর্ডেই জমা হয়নি, অভিযোগ অ্যাডভোকেট যুথির ঢাকা বারের নবনির্বাচিত কমিটিকে এড. নাহিদ সুলতানা যূথীর অভিনন্দন দেবীদ্বারে তানিশা ট্রাভেল এজেন্সি উদ্বোধন দেবীদ্বারে ভোটের আগের রাতেই নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থীর মৃত্যু সাংবাদিকদের ডাটাবেজ সরকারের একটি প্রশংসনীয় উদ্যোগ প্রকৃত কারণ বের করা জরুরি, সাংবাদিক হাবীবের মৃত্যু দুর্ঘটনা নাকি হত্যা? : সাংবাদিক রায়হান উল্লাহ সড়ক দুর্ঘটনায় সাংবাদিকের মৃত্যু, কুমিল্লায় শোকের মাতম কর্নেল ফারুক খান এমপিকে জসীম উদ্দিন চৌধুরীর শুভেচ্ছা হুইপ স্বপনের পিতার মৃত্যুতে ফারুক খান এমপির শোক

ডিবির তদন্ত শুরু, ফরেনসিক ল্যাবে পাঠানো হচ্ছে রোজিনার মোবাইল

  • প্রকাশকাল: শুক্রবার, ২১ মে, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক : কারাবন্দি সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলার আনুষ্ঠানিক তদন্ত শুরু করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। তার জব্দ করা মোবাইল ফোন দুটি ফরেনসিক ল্যাবে পাঠানোরও প্রক্রিয়া শুরু করেছে তদন্ত সংস্থা।

পাশাপাশি মামলার নথিপত্রও যাচাই শুরু হয়েছে। এদিকে রোজিনার বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহার ও তার মুক্তি দাবিতে আন্দোলন অব্যাহত রেখেছে সাংবাদিকদের বিভিন্ন সংগঠন।

তার নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করে গতকাল শুক্রবার বিবৃতি দিয়েছেন দেশের ৮৩ বিশিষ্ট নাগরিক। পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় গত সোমবার সচিবালয়ে রোজিনা ইসলামকে আটকে রেখে হেনস্তা করেন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা। রাতে তাকে শাহবাগ থানা পুলিশে হস্তান্তর করে নথি চুরি ও অফিসিয়াল সিক্রেটস অ্যাক্টের মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়। পরদিন পুলিশ তাকে পাঁচ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে হাজির করলে বিচারক রিমান্ড আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

গত বৃহস্পতিবার তার জামিন আবেদনের শুনানি হলেও আদালত আগামীকাল রোববার এ বিষয়ে আদেশের দিন ধার্য রেখেছেন। রোজিনা এখন কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি রয়েছেন। শুরুর দিকে মামলাটি শাহবাগ থানা পুলিশ তদন্ত করলেও বর্তমানে ডিবির রমনা বিভাগ তদন্ত করছে।

আরও পড়ুন :  জেবুন্নেসা বিরোধী সংবাদ ঠেকাতে স্বাস্থ্যের 'ভুলভাল' চিঠি তথ্য মন্ত্রণালয়ে
আরও পড়ুন :  রোজিনাকে ফাঁসাতে গিয়ে বহি:বিশ্বে বাংলাদেশের ভাবমুর্তি ক্ষুন্ন করলো স্বাস্থ্য বিভাগ

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের উপসচিব ডা. শিব্বির আহমেদ ওসমানীর দায়ের করা মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, রোজিনা ইসলাম স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিবের একান্ত সচিবের খালি কক্ষে ঢুকে দাপ্তরিক গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র শরীরের বিভিন্ন স্থানে লুকান এবং মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ছবি তোলেন। ওই সময়ে দায়িত্বরত পুলিশ সদস্য বিষয়টি দেখতে পেয়ে বাধা দেন। পরে অতিরিক্ত সচিব কাজী জেবুন্নেছা বেগম তল্লাশি করে তার কাছ থেকে ‘বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র এবং ডকুমেন্টেসের ছবি’ সংবলিত মোবাইল ফোন উদ্ধার করেন।

এজাহারে আরও বলা হয়, এসব কাগজপত্র গুরুত্বপূর্ণ বিধায় মন্ত্রণালয়ে সংরক্ষিত আছে, যা পরে আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী প্রদর্শন করা হবে। তবে পুলিশের তৈরি করা জব্দ তালিকায় বলা হয়, আলামত হিসেবে জেনেভার বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনের অ্যাম্বাসেডরের পাঠানো দুই পাতার ডিও লেটার, কভিড-১৯ মোকাবিলায় ব্যবহূত চিকিৎসা সরঞ্জামাদি ক্রয়ের প্রস্তাব অনুমোদনের লক্ষ্যে ক্রয়-সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটিতে পাঠানোর জন্য সিএমএসডির পরিচালকের পাঠানো ৫৬ পাতা, সরকারি ক্রয়-সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির জন্য দুই পাতার সারসংক্ষেপ, করোনাভাইরাস প্রতিরোধী টিকা সংগ্রহ ও বিতরণ সংক্রান্ত আন্তঃমন্ত্রণালয় পরামর্শ কমিটি অনুমোদন সংক্রান্ত অনুমোদিত দুই পাতার সারসংক্ষেপ, একটি আইফোনসহ দুটি মোবাইল ফোনসেট ও দুটি পিআইডি কার্ড জব্দ করা হয়। জব্দ তালিকায় আরও বলা হয়, অতিরিক্ত সচিব কাজী জেবুন্নেছা বেগমের উপস্থাপন মতে উপরোক্ত ডকুমেন্টস ও মোবাইল ফোন জব্দ করা হলো।

এদিকে দাবি করা কাগজপত্র গুরুত্বপূর্ণ উল্লেখ করে মামলার এজাহারে নিজেদের কাছে রেখে দেওয়ার কথা বলা হলেও জব্দ তালিকায় তা কীভাবে এলো, তা নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। তা ছাড়া জব্দ তালিকা অনুযায়ী তা রোজিনা ইসলামের কাছ থেকে পুলিশ উদ্ধার করেনি।

এসব বিষয়ে প্রশ্ন তুলে গতকাল রাজধানীর সেগুনবাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (ডিআরইউ) চত্বরে প্রতিবাদ সমাবেশে সংগঠনটির সহসভাপতি ওসমান গণি বাবুল বলেন, রোজিনা ইসলামের কাছ থেকে কোনো নথি জব্দ করেনি পুলিশ, করেছে বাদীপক্ষ অতিরিক্ত সচিবের কাছ থেকে। জব্দের তালিকা থেকে দেখা গেছে, রাষ্ট্রীয় গোপনীয় কোনো তথ্য নেই।

আরও পড়ুন :  মন্ত্রণালয়ের গুটি কয়েক লোকের কারণে প্রশ্নের মুখে পড়ছি: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

মামলার তদন্ত সংশ্নিষ্ট সূত্র জানায়, এজাহারে মোবাইল ফোনে গুরুত্বপূর্ণ নথির ছবি তোলার অভিযোগ ছাড়াও নথি চুরির অভিযোগ রয়েছে। এসব অভিযোগ প্রমাণের জন্য জব্দ করা মোবাইল ফোন ফরেনসিক পরীক্ষার প্রয়োজন। এ জন্য আদালতের অনুমতিও প্রয়োজন। এ ছাড়া ঘটনাস্থলে থাকা সিসিটিভির ফুটেজও যাচাই করা হবে। তদন্ত কর্মকর্তারা সেই পথেই হাঁটছেন।

মামলাটির তদন্ত তদারক কর্মকর্তা ডিবির রমনা বিভাগের উপকমিশনার এইচ এম আজিমুল হক বলেন, তারা মামলাটির আনুষ্ঠানিক তদন্ত শুরু করেছেন। তদন্তের প্রয়োজনে যা করা দরকার, তাই করা হবে।

রোজিনা মুক্ত না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে :ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি আয়োজিত প্রতিবাদ সমাবেশের তৃতীয় দিন গতকাল কারাবন্দি এই সাংবাদিক মুক্ত না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে বলে জানিয়েছেন সাংবাদিক নেতারা। তারা বলেছেন, রোজিনার বিরুদ্ধে মামলা মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক। তিনি মুক্ত না হলে মুক্ত সাংবাদিকতার অস্তিত্ব হুমকির মধ্যে পড়বে। ব্যক্তিগত তথ্য ও ফোনালাপ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে বিভ্রান্তি তৈরি করে সাংবাদিকদের ঐক্যে যাতে বিভেদ সৃষ্টি করা না হয়, সে বিষয়ে সতর্ক থাকতেও বলেছেন নেতারা।

ডিআরইউ চত্বরে সংগঠনের সহসভাপতি ওসমান গণি বাবুলের সভাপতিত্বে ও কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য এমএম জসিমের সঞ্চালনায় সমাবেশে বক্তব্য দেন ডিআরইউর সাধারণ সম্পাদক মসিউর রহমান খান, সাংবাদিক নেতা দীপ আজাদ, সিদ্দিকুর রহমান, শফিকুল ইসলাম কাজল, শহিদুল ইসলাম, মাইনুল হাসান সোহেল, ওমর ফারুক, হেলিমুল আলম বিপ্লব, জামিউল আহসান শিপু, আতাউর রহমান, শাহনাজ শারমিন, রিয়াদুল করিম, আহমেদ ফয়েজ, আশীষ কুমার দে, শিপন হাবিব, রাব্বি সিদ্দিকী, মানিক লাল ঘোষ, সাইফুল ইসলাম জুয়েল, এসএম ফয়েজ, রফিক রাফি, মতলু মল্লিক প্রমুখ।

রোজিনার নিঃশর্ত মুক্তি ও মামলা প্রত্যাহার দাবিতে জাতীয় গণতান্ত্রিক লীগ জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন করেছে। দলের সভাপতি এমএ জলিলের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য দেন কাজী মাসুদ আহমেদ, মাসুম বিল্লাহ নাফিয়ী, হুমায়ুন কবির প্রমুখ। একই দাবিতে প্রগতিশীল ছাত্র জোট ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্য প্রাঙ্গণে সংহতি সমাবেশ করেছে। জোটের সমন্বয়ক ও সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন প্রিন্স সমাবেশে সভাপতিত্ব এবং ছাত্র ফ্রন্টের অর্থ সম্পাদক মুক্তা বাড়ৈ সঞ্চালনা করেন।

এ ছাড়া সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করেছে বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন সিলেট বিভাগীয় কমিটি। সুনামগঞ্জ শহরে মানববন্ধন করেছে জেলা মহিলা পরিষদ, উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী, খেলাঘর আসর, প্রগতি লেখক সংঘ, জেলা কমিউনিস্ট পার্টি, জেলা যুব ইউনিয়ন, জেলা ছাত্র ইউনিয়ন ও বন্ধুসভা। পটুয়াখালী প্রেস ক্লাব চত্বরে মানববন্ধন ও সমাবেশ করেন সাংবাদিকরা। এর আয়োজন করে পটুয়াখালী প্রেস ক্লাব।

আরও পড়ুন :  সাংবাদিক রোজিনার মামলাটি প্রত্যাহার চায় আইএফজে

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ ক্যাটাগরীর আরও খবর




twitt feed

Linkedin profile



Copyright ©2021,joybanglarjoy.com, All Rights Reserved.

ডিজাইনঃ নাগরিক আইটি