অধ্যাপক আলী আশরাফ ভাই! – জয় বাংলার জয়
  1. admin@prothomaloonlinenews.com : admin :
বুধবার, ২৫ মে ২০২২, ১০:২১ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তিঃ

শিঘ্রই ম্প্রচারে আসছে রিয়ান টেলিভিশন। ২৪ ঘণ্টার পূর্ণাঙ্গ বাংলা টেলিভিশন "রিয়ান" টেলিভিশন। ‌'দেখিয়ে দাও বাংলাদেশ' স্লোগানকে সামনে রেখে সিঙ্গাপুর, লন্ডন, নিউইয়র্ক ও ঢাকা থেকে চারটি আলাদা বেজ-স্টেশনের মাধ্যমে পরিচালিত হবে চ্যানেলটি ♦ ঈদ মানে আনন্দ, তবে আমার জন্য না! যেমন আমার ঈদের আনন্দ কেড়ে নিয়েছে সে.....

ব্রেকিং নিউজ :
সম্পাদক পদে মনোনয়ন জমা দিলেন যুবলীগ চেয়ারম্যানের স্ত্রী এড.যূথী মনোনয়নপত্র বোর্ডেই জমা হয়নি, অভিযোগ অ্যাডভোকেট যুথির ঢাকা বারের নবনির্বাচিত কমিটিকে এড. নাহিদ সুলতানা যূথীর অভিনন্দন দেবীদ্বারে তানিশা ট্রাভেল এজেন্সি উদ্বোধন দেবীদ্বারে ভোটের আগের রাতেই নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থীর মৃত্যু সাংবাদিকদের ডাটাবেজ সরকারের একটি প্রশংসনীয় উদ্যোগ প্রকৃত কারণ বের করা জরুরি, সাংবাদিক হাবীবের মৃত্যু দুর্ঘটনা নাকি হত্যা? : সাংবাদিক রায়হান উল্লাহ সড়ক দুর্ঘটনায় সাংবাদিকের মৃত্যু, কুমিল্লায় শোকের মাতম কর্নেল ফারুক খান এমপিকে জসীম উদ্দিন চৌধুরীর শুভেচ্ছা হুইপ স্বপনের পিতার মৃত্যুতে ফারুক খান এমপির শোক

অধ্যাপক আলী আশরাফ ভাই!

  • প্রকাশকাল: শুক্রবার, ৩০ জুলাই, ২০২১

নাজনীন সুলতানা: অধ্যাপক আলী আশরাফ কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজে পড়া অবস্থায় ছাত্রলীগের সাথে জড়িত হয়ে পড়েন। ১৯৭০ প্রাদেশিক পরিষদ নির্বাচনে তিনি অত্যন্ত তরুণ বয়সে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে ‘মই’ প্রতীক নিয়ে অংশগ্রহণ করে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বীতা করে আওয়ামী লীগের হাজী রমিজ উদ্দিনের কাছে হেরে যান। আওয়ামী লীগের হাজী রমিজ উদ্দিন পান ১৮৭৬৭ ভোট অধ্যাপক আলী আশরাফ পান ১৩১৭৪।

আওয়ামী লীগের জোয়ারে এরকম ক্লোজ মার্জিনে হারা ৭ প্রার্থীর মধ্যে তিনি একজন। স্বাধীনতার পর ১৯৭৩ সালের প্রথম বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ‘মাছ’ প্রতীকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে তিনি ১৯৭০ সালের হাজী রমিজ উদ্দিনকে হারিয়ে পরাজয়ের বদলা দেন। ১৯৭৯ সালের নির্বাচনে সামরিক শাসনের বৈরি পরিবেশে বিএনপির রেদোয়ান আহমেদ এর কাছে পরাজিত হন। তবে তিনি ১৯৯৬, ২০০৮, ২০১৪ এবং ২০১৮ সালের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়লাভ করেন।

সাংগঠনিকভাবে কুমিল্লা জেলাকে দুই ভাগ করার পরে কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাকালীন সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। পরবর্তীতে তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে অর্থ ও পরিকল্পনা সম্পাদক হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন।

২০০১ সালে স্পিকার হুমায়ুন রশিদ চৌধুরী মৃত্যুবরণ করলে তৎকালীন ডেপুটি স্পিকার মো. আবদুল হামিদ এডভোকেট স্পিকারের দায়িত্ব পান এবং অধ্যাপক মো. আলী আশরাফ ডেপুটি স্পিকার মনোনীত হন।

আওয়ামী লীগ নেতাদের মধ্যে তিনি অন্যতম যিনি ৭৫ পরবর্তী সময়েও আওয়ামী লীগের রাজনৈতিক আদর্শে আস্থাশীল থেকেছেন এবং বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক দর্শনকে লালন করে বঙ্গবন্ধু কন্যার নেতৃত্বে অবিচল একটি বর্ণিল রাজনৈতিক জীবন অতিবাহিত করেছেন। বঙ্গবন্ধুর অন্যতম খুনি কর্নেল রশীদকে মোকাবিলা করেই চান্দিনার মাটিতে আওয়ামী লীগকে প্রতিষ্ঠিত করতে সক্ষম হয়েছিলেন।

প্রায় ছয় দশকের রাজনৈতিক জীবনে চান্দিনার মানুষের জন্য নিরলস কাজ করেছেন। চান্দিনায় বহু স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠা করেছেন।
এছাড়া সংসদীয় রাজনীতিতেও আলী আশরাফ ছিলেন অনেক অভিজ্ঞ।
সাবেক ডেপুটি স্পিকার অধ্যাপক মো. আলী আশরাফ এমপি আজ শুক্রবার, ৩০ জুলাই, বিকেল সাড়ে ৩টায় ঢাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন।
তাঁর মৃত্যুতে দেশ একজন নিঃস্বার্থ রাজনীতিবিদকে হারালো আর কুমিল্লার মানুষ হারালো একজন অভিভাবককে।

আরও পড়ুন :  জানাজায় ঢল, মা-বাবার পাশে শায়িত এমপি আলী আশ্রাফ

প্রয়াত এই নেতার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি ও পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাচ্ছি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ ক্যাটাগরীর আরও খবর




twitt feed

Linkedin profile



Copyright ©2021,joybanglarjoy.com, All Rights Reserved.

ডিজাইনঃ নাগরিক আইটি