সরি সুমন ভাই, বর্তমান কলুষিত রাজনৈতির পথটি আপনার জন্য নয় – জয় বাংলার জয়
  1. admin@prothomaloonlinenews.com : admin :
বুধবার, ০৬ জুলাই ২০২২, ১১:০৩ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তিঃ

শিঘ্রই ম্প্রচারে আসছে রিয়ান টেলিভিশন। ২৪ ঘণ্টার পূর্ণাঙ্গ বাংলা টেলিভিশন "রিয়ান" টেলিভিশন। ‌'দেখিয়ে দাও বাংলাদেশ' স্লোগানকে সামনে রেখে সিঙ্গাপুর, লন্ডন, নিউইয়র্ক ও ঢাকা থেকে চারটি আলাদা বেজ-স্টেশনের মাধ্যমে পরিচালিত হবে চ্যানেলটি ♦ ঈদ মানে আনন্দ, তবে আমার জন্য না! যেমন আমার ঈদের আনন্দ কেড়ে নিয়েছে সে.....

ব্রেকিং নিউজ :
সম্পাদক পদে মনোনয়ন জমা দিলেন যুবলীগ চেয়ারম্যানের স্ত্রী এড.যূথী মনোনয়নপত্র বোর্ডেই জমা হয়নি, অভিযোগ অ্যাডভোকেট যুথির ঢাকা বারের নবনির্বাচিত কমিটিকে এড. নাহিদ সুলতানা যূথীর অভিনন্দন দেবীদ্বারে তানিশা ট্রাভেল এজেন্সি উদ্বোধন দেবীদ্বারে ভোটের আগের রাতেই নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থীর মৃত্যু সাংবাদিকদের ডাটাবেজ সরকারের একটি প্রশংসনীয় উদ্যোগ প্রকৃত কারণ বের করা জরুরি, সাংবাদিক হাবীবের মৃত্যু দুর্ঘটনা নাকি হত্যা? : সাংবাদিক রায়হান উল্লাহ সড়ক দুর্ঘটনায় সাংবাদিকের মৃত্যু, কুমিল্লায় শোকের মাতম কর্নেল ফারুক খান এমপিকে জসীম উদ্দিন চৌধুরীর শুভেচ্ছা হুইপ স্বপনের পিতার মৃত্যুতে ফারুক খান এমপির শোক

সরি সুমন ভাই, বর্তমান কলুষিত রাজনৈতির পথটি আপনার জন্য নয়

  • প্রকাশকাল: রবিবার, ৮ আগস্ট, ২০২১

শরিফুল আলম চৌধুরী: ব্যারিস্টার সুমন ভাইয়ের ঘটনাটিতে আমি মোটেও অবাক হইনি। পদটি পাওয়ার সময়ই আমি অনুমান করেছি এই উলুখাগড়াদের ভীড়ে উনার মত মানুষ বেশীদিন টিকে থাকতে পারার কথা না! যা হোক, অনুমান সত্যি হয়েছে। উনি আসলে বুঝতে পারেননি আন্দোলন আর সংগ্রামের যে মাঠটিতে উনি দলের দুঃসময়ে ছিলেন সেখানে আজ দলবাজি, ট্যাগবাজি আর অসুস্থ রাজনৈতিক প্রতিযোগিতার বাম্পার ফলন!

উনার লাইভ আর আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর ওই কর্মীটির ভিডিও দুটি ভাল করে লক্ষ্য করলাম। একজন সরকারী আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য দলীয় কর্মীদের মত (আবারও বলছি দলীয় কর্মীদের মত) রাজনৈতিক শ্লোগান দিয়ে দেয়ার ঘটনাটির সাথে আইন এবং নীতির সাংঘর্ষিকতার ব্যাপারটি উনি বুঝাতে চেয়েছেন। এই জিনিসটাকে ‘লিসেন হাফ, থিঙ্ক জিরো এন্ড এক্ট ডাবল’ টাইপের উলুখাগড়ার দল ‘জয়-বাংলা’ শ্লোগান আবমাননা করে ফেলার মতো একটা সেন্সেটিভ ফ্লেভার দিয়ে তাকে দল থেকে বহিষ্কার করাটা নিশ্চিত করলো।

ক্ষমতা আর দাপটের বাড়বাড়ন্ত এই সময়ে হুট করে ফুলে ফেঁপে উঠা মোটা ভুড়িওয়ালা রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ বিএনপি-জামাত সরকারের আমলে যখন নিজের ব্যাবসা আর টাকা-কামানোর ধান্দায় ঘুরে বেড়িয়েছেন , সুমন তখন জয়বাংলা শ্লোগানটা নিয়ে রাজপথে। প্রশাসনের ট্যাগ লাগানো এবং সরকারী দলের ক্ষমতা খাটানো গনকর্মচারীটি যখন বিসিএসের জন্য এমপিথ্রি সিরিজের বইগুলির উপর বুঁদ হয়ে ছিলেন, ব্যারিস্টার সুমন তখন পুলিশের চোখ রাঙ্গানো উপেক্ষা করে অপরাজেয়-বাংলার পাদদেশে ‘জয়-বাংলা’ শ্লোগানের সাথে গলা মেলাতে ব্যাস্ত। সময়ের পরিক্রমায় আসলে এই সমস্ত গল্প চাপা পড়ে যায়।

ব্যারিস্টার সুমনের ঘটনাটি আসলে দলে দীর্ঘ একযুগের অসুস্থ রাজনৈতিক চর্চার বাই-প্রোডাক্ট। সহযোগী সংগঠনগুলির রাজনীতি কর্মকাণ্ডে যে গুনগত পরিবর্তন বঙ্গবন্ধু-কন্যা খুঁজে বেড়াচ্ছেন, উনার বহিস্কারের সিদ্ধান্তটি সেই স্পিরিটটির সম্পূর্ণ বিপরীত।

আর ওই দুঃসময়ের যে সকল ভাই-ব্রাদার তার সম্পর্কে আজেবাজে মন্তব্য করছেন এবং তার রাজনৈতিক অবদান নিয়ে সার্টিফিকেট দিচ্ছেন, তাদের কথা আর কি বলবো! সময় গড়িয়েছে, কিন্তু আপনাদের ঘড়ির কাটাটি আর এগুলো না। আপনারা ভুলে গিয়েছেন একটা হল কমিটির মেম্বারকেও ঐ সময় কতটা ঝঞ্জাবিক্ষুব্ধ অবস্থার মধ্যদিয়ে আন্দোলন সংগ্রামের কর্মসূচিগুলিতে থাকতে হতো। সুতরাং, সাময়িক লাভের আশায় এই ধরনের আত্নঘাতী সার্টিফিকেট দয়া করে দিবেন না। আপনারা বরং ক্ষমতার দাপটে ফুলে ফেঁপে উঠা হাইব্রিড নেত্রীবৃন্দের জন্মদিন আর এনিভারসারী উপলক্ষে শুভেচ্ছা জানাতে ব্যাস্ত সময় কাটান।

আরও পড়ুন :  সাংবাদিকদের প্রতি নোবেল: এরকম ভুল আর হবে না

সরি সুমন ভাই। বর্তমান কলুষিত রাজনৈতির পথটি আপনার জন্য নয়। আপনার জন্য শুভকামনা।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ ক্যাটাগরীর আরও খবর




twitt feed

Linkedin profile



Copyright ©2021,joybanglarjoy.com, All Rights Reserved.

ডিজাইনঃ নাগরিক আইটি